Umid Najjari (Azerbaijan – Iran) / Translated into Bengali by Suchismita Ghoshal

 
Umid Najjari (Azerbaijan – Iran) 
 
Umid Najjari (Azerbaijani: Ümid Nəccari) (April 15, 1989, Tabriz, East Azerbaijan Province, Islamic Republic of Iran) is a poet, author, translator, publicist, member of the Azerbaijan Writers’ Union and the World Union of Young Turkish Writers.
 
Umid Najjari began his career at a young age. His first works were published in the periodicals of Tabriz. He is the author of three books. In 2015, the books “Valley of Birds” and in 2019 “On the other side of the walls” was published in Iran. In 2019, the book “Photo of Darkness” was published in Baku. In 2020, a book of poems “SLIKA TAME” (in Serbian) was published in Belgrade. A book of poems “Forget” was also published in Uzbekistan.
 
 
লেখকের জীবনী:
 
উমিদ নাজ্জারি (আজারবাইজানি: idmid Nəccari) (15 এপ্রিল, 1989, তাবরিজ, পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশ, ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরান) একজন কবি, লেখক, অনুবাদক, প্রচারক, আজারবাইজান রাইটার্স ইউনিয়নের এবং ওয়ার্ল্ড ইউনিয়ন অফ ইয়ং টার্কিশ রাইটার্স – এর সদস্য।
 
উমিদ নাজ্জরী তার কেরিয়ার শুরু করেছিলেন অল্প বয়সে। তার প্রথম রচনাগুলি তাবরিজের সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছিল। তিনি তিনটি বইয়ের লেখক। 2015 সালে, “ভ্যালি অফ বার্ডস” এবং 2019 সালে “অন দ্যা আদার সাইড অফ্ দ্যা ওয়াল” বইগুলি ইরানে প্রকাশিত হয়েছিল। 2019 সালে ” ফটো অফ্ ডার্কনেস” বইটি বাকুতে প্রকাশিত হয়েছিল। 2020 সালে, বেলগ্রেডে “SLIKA TAME” (সার্বিয়ান ভাষায়) কবিতার একটি বই প্রকাশিত হয়েছিল। উজবেকিস্তানে “ফরগেট” কবিতার একটি বইও প্রকাশিত হয়েছিল।
 
 
Bleeding wing
 
I was sitting!
And I was forcing my eyes to meet
the sky.
I was singing my past to the trees
My cloudness was pssing the bridge of my hopes
I was singing for all wings
For the God that made the wings
The world beneath the wings
 
In this house
Everything is like bleeding wing
All the pillows made of feather
… I was sitting here,
There was nothing here!
Only
A pigeon whose nest is ruined by the wind
Was speaking to herself …
 
 
রক্তাক্ত ডানা
 
আমি বসেছিলাম
এবং আমি আমার চোখকে আকাশের সাথে দেখা করতে বাধ্য করছিলাম
আমি গাছেদের আমার অতীতের গান শোনাচ্ছিলাম
আমার মেঘলাতা আমার আশার সেতুকে অতিক্রম করছিল
আমি সব ডানার জন্য গান করছিলাম
ঈশ্বর যে ডানা তৈরি করেছেন তার জন্য
ডানার নিচে এই সমগ্র পৃথিবী
 
এই বাড়িতে
সব কিছু রক্তাক্ত ডানার মত
পালক দিয়ে তৈরি সব বালিশ
আমি এখানে বসেছিলাম,
এখানে কিছুই ছিল না!
কেবল
একটি পায়রা যার বাসা বাতাসে নষ্ট হয়ে গেছে
নিজের সাথে সে কথা বলছিল …
 
 
Open the book
 
From humanity to being a book
There is a way of one night
If one day I become a poem
Don’t look for me in the alleys,
Open the book
Word by word holds my hands.
 
 
বইটি খোলো
 
মানবতা থেকে বই হওয়া পর্যন্ত
এক রাতের পথ রয়েছে
যদি একদিন কবিতা হয়ে যাই
আমাকে গলিতে খুঁজো না,
বইটি খোলো
শব্দের পর শব্দ দিয়ে আমার হাত ধরো।
 
 
My heart bag
 
In hir loneliness room
First a bird flew, then the sky ..
I forgot
I forgot my heart bag in taxi of your eyes
… then
I forgot myself in the longing café of this city
I don’t know how many door pains have,
I don’t know about those died in moonlight
I don’t know the story of crying ones …!
… But
There’s somebody on the earth, cries silently,
… He never misses like a stone on the roads
Never passes the earth like a cloud …
He speaks of his wounds to the darkness,
Behaves like a God to the letters in his heart …
… you know
If we don’t draw wing to ourselves in the mirror,
The rain drops clean it,
We’ll be forgotten one day.
… you know
Forgotten ones have used to give
The skies to their eyes …
 
 
আমার হৃদয়ের থলি
 
তার একাকীত্বের ঘরে
প্রথমে একটি পাখি উড়ে গেল, তারপর আকাশ।
আমি ভুলে গেছি
আমি তোমার চোখের ট্যাক্সিতে আমার হৃদয়ের থলি ভুলে গেছি
… তারপর
আমি এই শহরের আকাঙ্খিত ক্যাফেতে নিজেকে ভুলে গেছি
জানিনা কত দরজার যন্ত্রণা আছে,
যারা চাঁদের আলোয় মারা গেছে তাদের সম্পর্কে আমি জানি না
আমি কান্নার গল্প জানি না …!
… কিন্তু
পৃথিবীতে কেউ আছে, নীরবে কাঁদে,
… সে কখনো রাস্তায় পাথরের মত মিস করে না
সে কখনো মেঘের মত পৃথিবীকে অতিক্রম করে না …
সে তার ক্ষতের কথা বলে অন্ধকারে,
তার হৃদয়ের অক্ষরের সাথে ঈশ্বরের মতো আচরণ করে …
… তুমি জানো
যদি আমরা আয়নায় নিজেদের ডানা না আঁকি,
বৃষ্টির ফোঁটা পরিষ্কার করে,
আমরা একদিন ভুলে যাব।
… তুমি জানো
ভুলে যাওয়া মানুষগুলো আকাশকে
তাদের চোখের কাছে সঁপে দিত…

 

Translated into Bengali by Suchismita Ghoshal

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s