A bunch of translated poems about Ukraine / Translated into Bengali by Dr. Masudul Hoq

 
Dr. Masudul Hoq
 
 
ইউক্রেন নিয়ে একগুচ্ছ অনূদিত কবিতা
(A bunch of translated poems about Ukraine)
 
অনুবাদ : মাসুদুল হক
 
শিরোনামহীন
(UNTITLED)
 
মূল: অ্যামেলিয়া ফিল্ডেন
 
রাশিয়ার বোমাবর্ষণে
একটি হাসপাতাল
ধ্বংসপ্রাপ্ত
 
নারী, শিশু, বালক-বালিকার জন্য–
র‌‌ইলো আমার কান্নার অকেজো ক্রোধ
 
অ্যামেলিয়া ফিল্ডেন (Amelia Fielden) লেখক, কবি এবং অনুবাদক;অস্ট্রেলিয়ার উলংগং-এ বসবাস করছেন।তিনি জাপানি ভাষায় খুব সাবলীল এবং তার জীবনের বেশিরভাগ সময় নিমগ্ন থেকেছেন জাপানি
সংস্কৃতির ভেতর।
 
 
 
নিরস্ত্র
(DISARMED)
 
মূল:ফ্রান্সিস এডমন্ড বালোঘ
 
বন্দুকগুলো নরম হয়ে মাটিতে পড়তে পড়তে
মায়ের হৃদয়ের ছোঁয়ায় ফুলে পরিণত হয়;
সৈন্যরা আমাদের উপর গোলাপের পাপড়ি
মেঘের মত ছড়িয়ে দিলে
আকাশ থেকে নীল কেঁদে ওঠে।
 
প্রেম খাঁচায় আবদ্ধ একটি দুঃখের পাখিই
থেকে যায়,
জীবন ভোরের আলোতেই স্তবদ্ধ হতে থাকে;
আলো ছলছল, ধাঁধাঁয় হামাগুড়ি দিতে
প্রস্তুত হয়ে ওঠে শেষ নিঃশ্বাস।
 
সুখের ভাগ্য আটকে যায়
তার‌ই অপরাজিত পথে।
 
ফ্রান্সিস এডমন্ড বালোঘ(Francisc Edmund Balogh)রোমানিয়ার সাতু মেরে’তে বসবাস করেন। তিনি একজন পুরস্কার বিজয়ী কবি, লেখক এবং
সঙ্গীতজ্ঞ; বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংকলন ও সাহিত্য পত্রিকায় তার কবিতা নিয়মিত প্রকাশিত হয়।
 
 
 
সম্প্রীতি
(HARMONY)
 
মূল: মার্গারিটা ভানিওভা দিমিত্রোভা
 
শান্ত হোন
কোমলতা,
ধার্মিকতা,
প্রশান্তি আর
গ্রহণযোগ্যতার জন্য।
 
সঙ্গে নরম সূর্যের আলোয়
আপনি পবিত্র দিব্যজ্ঞান
অনুসরণের
পথ তৈরি করুন
সম্প্রীতির জন্য, শান্তির জন্য,
প্রত্যাশিত স্পর্শের জন্য
আমাদের বিশাল পৃথিবীর বিস্তৃতিতে।
 
মার্গারিটা ভানিওভা দিমিত্রোভা (Margarita Vanyova Dimitrova) বুলগেরিয়ার প্রাচীন শহর প্লোভডিভে বসবাস করেন। তার লেখা কবিতা বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পত্রিকা ও জার্নালে নিয়মিত প্রকাশিত হয়।
 
 
 
সন্ধ্যার জাল
(THE MESHES OF THE EVENING)
 
মূল: মাত্তেও মারাঙ্গোনি
একটি অপরাধী ধারণাই
বর্তমান ঘটনার ভণ্ডামির কারণ;
কিছু শব্দের একই আওয়াজ থাক
পাথরের প্রতিটি ধাপে।
একটি শিশু সময়ের শুধু
একটি মৃদু পরিস্থিতি নয়
একটি দিনপঞ্জিকা যেখানে
একটি আলোকিত দিন ঢুবে যায়।
 
মাত্তেও মারাঙ্গোনি (Matteo Marangoni)ইতালির
লেখক এবং কবি।সংগীত, নাটক ও শিল্পকলায় পারদর্শী এই কবি ভ্রমণ ও পর্যটন বিষয়ে একজন
বিশেষজ্ঞ।
 
 
মারিউপলের ধ্বংসস্তূপে
(IN THE DEBRIS OF MARIUPOL)
 
মূল:জে এম সানচেজ
আমি একটুকরো কাগজের উপরে খুঁজে
পেয়েছি এই বেনামী শব্দ
মারিউপোলের
ধূমপানের ধ্বংসাবশেষে:
দরিদ্র
যুদ্ধে কখনো জিতবে না;
এমনকি যখন তারা জিতেও যাবে।
হয়তো এই কথাগুলো
প্রদর্শিত হবে না,
পরবর্তী শতাব্দীতেও,
ভবিষ্যতের ইতিহাসের বইয়ে
(কারণ ইতিহাস
দরিদ্রদের ভুলে যায়;
কারণ এ শুধুই কবিতা)।
 
জে এম সানচেজ (Xe M. Sánchez)একজন নৃবিজ্ঞানী, যিনি স্পেনের আস্তুরিয়াসের
প্রিন্সিপ্যালিটিতে বসবাস করছেন। তিনি ইতিহাসে তার পিএইচডি অর্জন করেছেন এবং সাতটি বই প্রকাশ করেছেন আস্তুরিয়ান ভাষায়।
 
 
 
হলুদ ও নীল
(YELLOW & BLUE)
 
মূল:ন্যাটি ও’শেগজি
হলুদ ও নীল
দুটি প্রাণবন্ত রঙ
গোধূলি ও আকাশ
বৃষ্টিতে ভিজে
কিন্তু কেন
ভালোবাসার শীত
ওঠা নামা করে
রক্তের ঘড়িতে
ব্যথাহীন রোগে
হলুদ বা নীল
শীতের রং
আকাশে ছড়ায়
কিন্তু কেন
আমাকে
জিজ্ঞেস করো না।
ইমেল এসে
আবেগের কথা বলে
অন্ধকারে লুকানো
জীবনের চাপে
হলুদ ও নীলে
বোমাও শীতল
হতে পারে
তোমার শক্ত বাহুতে
মৃত শিখা দীর্ঘ হয়ে
বরফের উপর পা রাখে
দুর্বল পা তিনগুণে
হারিয়ে যাওয়া
অস্ত্রের সন্ধান করে
ক্ষয়-ক্ষতি ‌উঠে আসে
হলুদ ও নীল
তির্যক এক রঙ
কান্নার ফসল
অগ্নিশিখার ঝুড়ি।
 
ন্যাটি ও’শেগজি (Nattie O’Sheggzy)নাইজেরিয়ার কবি ও কথাসাহিত্যিক। তিনি প্রায় দুই দশক ধরে লিখে চলেছেন কবিতা ও গল্প। তার দু’টি কবিতার ব‌ই রয়েছে। তার কবিতা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সাহিত্য সংকলন ও ব্লগে নিয়মিত প্রকাশিত হয়।
 
 
 
স্কেচিং
(SKETCHING)
 
মূল:অ্যাগনিয়েসকা উইক্টোরোভস্কা-চমিলেউস্কা
বাঁধের অবরুদ্ধ জলে বগলা পাখিগুলো
আশ্রয়কেন্দ্রে থাকাকালীন সময়ে
চেষ্টা করে ওদের উদ্বেগ প্রতিস্থাপন করে নিতে
ঘুম ঘুম শরীরে নিদ্রামগ্ন
কয়েক মিনিটের ঘুমের মধ্যে।
আমার প্রিয় বন্ধুরা, ধূসর পালক,
উড়ে যাচ্ছে আগুনে পোড়া শহরের উপর;
চারদিকে (গুলি) তবু শান্তি ছড়িয়ে দিন।
অবশেষে সব‌ই শান্ত হবে
তবু একটা নির্লজ্জ প্রশ্ন থেকে যায় :
কিন্তু কেন? /কেন?
 
অ্যাগনিয়েসকা উইক্টোরোভস্কা-চমিলেউস্কা (Agnieszka Wiktorowska-Chmielewska ) পোল্যান্ডের ক্রাকোতে বসবাস করেন। তিনি একাধারে কবি, লেখক, নাট্যকার, অ্যানিমেটর,
সম্পাদক ও চিত্রনাট্যকার। তার আটটি কবিতার বই রয়েছে;পাশাপাশি শিশুদের জন্য অসংখ্য রেডিও নাটক ও গান রচনা করেছেন।
 
 
 
তাদের চোখের জল
(THEIR TEARS)
 
মূল :এভিথ বাহার
আমার কলম কাঁপছে
কান্নার বর্ণনা দিতে গিয়ে
শিশুদের চোখের নদী থেকে বয়ে যায়
খুব দ্রুত প্রবাহিত জল
আশা ও স্বপ্ন নিয়ে আসে
কোথাও কোনো সমুদ্রে
 
আমার কলম লেখা থামাতে পারে না
স্তবকের পর স্তবক
তাতে কান্না ও হতাশা উঠে আসে
যা দৃঢ়ভাবে জড়িয়ে আছে তীব্র চিৎকারে।
 
এভিথ বাহার( Ewith Bahar)ইন্দোনেশিয়ার লেখক, কবি, ঔপন্যাসিক, অনুবাদক এবং প্রাবন্ধিক।
বিভিন্ন বিষয়ে তার এগারোটি বই প্রকাশিত হয়েছে।
বিশ্বব্যাপী 80টিরও বেশি কবিতা সংকলনে তার কবিতা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।
 
 
 
অবরোধের ভেতর
(UNDER SIEGE)
 
মূল: রোহান ফেসি
গুলি আবার শিস দিল, প্রিয়তমা।
রেফারি হিসাবে নয়–তবে সর্বনাশ ও হতাশার
একচ্ছত্র দূত হিসাবে; শান্তির যাবতীয় তন্ত্রগুলো
ছিন্নভিন্ন অকেজো পথে।
আজ সকালে,
সূর্য চোখ খুলল না-
কেননা অন্ধকার-মানব এখানে হেঁটে গেছে
একটা ব্লুপ্রিন্টসহ –জাহান্নামের পায়তারা সাজিয়ে।
আর ঘণ্টা বাজতে থাকল–
বারবার ভুতুড়ে পরিবেশে …
“এবং মিষ্টিমুখর ধ্বনিতে বেজে চলে” বোঝায় ভরা
আমাদের ছুটির ঘন্টা, উদ্বিগ্ন কণ্ঠস্বর
অনিবার্যভাবে ফিসফিস করে: “এরপর কে?”
গুলি আবার শিস দিল, প্রিয়তমা।
মারাত্মক, ভাঙ্গা ধ্বনি
সঙ্গীতজ্ঞের সুর ​​হারানোর মতো।
বন্দুক আমাদের অস্তিত্বের চারপাশে ঘুরে বেড়ায়–
চাটুকারের মতো আড়চোখে দেখে নরক থেকে।
এবং অন্ধকার-মানব হেসে ওঠে– ফাঁসির মঞ্চে
আমাদের কোনো ক্ষমতা নেই।
 
রোহান ফেসি(Rohan Facey)জামাইকার অধিবাসী।
তিনি একজন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং একাধিক পুরস্কার বিজয়ী সমসাময়িক কবি, গীতিকার ও নাট্যকার। তার লেখা তার দেশের সংবাদপত্র এবং আন্তর্জাতিক সংকলনে নিয়মিত প্রকাশিত হয়ে থাকে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s